কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে মাদকসহ কারারক্ষী আটক

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে মাদকসহ এক কারারক্ষীকে আটক করেছে করা কর্তৃপক্ষ। আজ বুধবার ভোরে কারাগারের ভিতরে ডিউটিতে যাওয়ার সময় প্রবেশ করার মুহূর্তে তাকে আটক করা হয়। পরে কারাকর্তৃপক্ষ তাকে পুলিশে সোর্পদ করে। আটককৃত কারারক্ষী রোমান ভূঁইয়া (২৪) চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার বেলতলী বাজারের হাপানিয়া গ্রামের শাহাজাহান ভূঁইয়ার ছেলে। কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার শাহাজাহান আহমেদ এ কথা নিশ্চিত করেছেন।
কুমিল্লার কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মো.আসাদুর রহমান জানান, বুধবারে ভোর ৫টা ৫৮ মিনিটে শিফট পরিবর্তনের সময় ডিউটিতে আসে কারারক্ষী রোমান ভূঁইয়া। তার কারারক্ষী নং ২৩৩২২। কারাগারের ভিতরে প্রবেশ করার মুহূর্তে চেক করার সময় তার কাছে প্যান্টের ভিতর বিশেষ ব্যবস্থায় পায়ের সাথে লাগানো দুটি মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। কারাবিধি অনুযায়ী এটি বিশেষ অপরাধ। পরে সাথে সাথে তাকে আটক করা হয়। আটক করার পর তাকে ব্যারাকে নিয়ে তার রুমে তল্লাশি করলে তার ব্যবহৃত ট্রাঙ্কের ভিতর থেকে ৪ প্যাকেট গাঁজা ও আরো ৫টি মোবাইল ফোন ও নগদ ২০ হাজার ৫শ টাকা পাওয়া যায়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে টাকার বিনিময়ে বন্দিদের কাছে দীর্ঘদিন ধরে মাদক কেনাবেচা করে আসছে।
কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার শাহাজাহান আহমেদ বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের নীতি জিরোটলারেন্স । সে যে হোক, আমাদের নজরে আসলে আমরা অবশ্যই প্রয়োজনীয় কঠোর ব্যবস্থা নিব।’ সিনিয়র জেল সুপার আরো বলেন, ‘আমি পুলিশ সুপার মহোদয়কে বিষয়টি অবগত করেছি। আর কারাগারের পক্ষ হতে তার বিরুদ্ধে কারাবিধি অনুযায়ী বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’
কারারক্ষী রোমন ভূঁইয়া ১৯৯৭ সালের ৭ আগস্ট জন্মগ্রহণ করেন এবং ২০১৮ সালের ১ জুলাই কারারক্ষী হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন।
বর্তমান সিনিয়র জেল সুপার মো. শাহজাহান আহমেদ ২০২০ সালের ২৬ জানুয়ারি কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে সিনিয়র জেল সুপার হিসেবে যোগদান করার মাত্র তিন মাসের মাথায় একই অপরাধে ওই বছরের ৬ এপ্রিল তারিকুল ইসলাম শাহিন নামে অপর এক কারারক্ষীকে মাদকসহ কারাগারের অভ্যন্তরে আটক করে আইনের হাতে সোর্পদ করেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *